22 Sep 2015


১) পৃথিবীর কেন্দ্র দিয়ে উত্তর-দক্ষিণে কল্পিত রেখা – মেরু রেখা ।
২) দুই মেরু থেকে সমান দুরুত্বে পূর্ব-পশ্চিম পৃথিবীকে আবর্তনকারী রেখা – নিরক্ষরেখা ।
৩) পৃথিবীর ভূ-পৃষ্ঠের উপর দিয়ে উত্তর-দক্ষিণ মেরুকে সংযোগকারী রেখা – দ্রাঘিমা রেখা ।
৪) লন্ডনের গ্রীনিচ মান মন্দিরের উরপ দিয়ে গমনকারী দ্রাঘিমা রেখা – মূল মধ্যরেখা ।
৫) মূল মধ্যরেখা হতে ১৮০০ পূর্বে বা পশ্চিমে অবস্থিত দ্রাঘিমা রেখা – আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা ।
৬) নিরক্ষরেখা হতে উত্তরে বা দক্ষিণে অবস্থিত কোন বিন্দুর কৌণিক দূরত্ব হলো – অক্ষাংশ ।
৭) মূল মধ্যরেখা হতে পূর্ব বা পশ্চিমে অবস্থিত কোন বিন্দুর কৌণিক দূরুত্ব হলো – দ্রাঘিমাংশ 
৮) ৯০০ পূর্ব দ্রাঘিমা রেখাকে বলে – কর্কটক্রান্তি রেখা ।
৯) কর্কটক্রান্তি রেখা বাংলাদেশের কুমিল্লা, মাগুরা ও ঝিনাইদহের উপর দিয়ে গিয়েছে ।
১০) গ্রীনিচ সময় থেকে বাংলাদেশের সময় ৬ ঘন্টা আগে ।
১১) ভূ-পৃষ্ঠে মধ্যাকর্ষণজনিত ত্বরণ সবচেয়ে বেশী ।
১২) গ্যালিলও একটি – কৃত্রিম উপগ্রহ ।
১৩) ভূ-পৃষ্ঠের সৌরদীপ্ত ও অন্ধকারাচ্ছন্ন অংশের সংযোগস্থলকে বলে – ছায়াবৃত্ত ।
১৪) সমুদ্র পৃষ্ঠের স্বাভাবিক চাপ – ৭৬০ মি.মি. বা ৭৬ সে.মি ।
১৫) আটলান্টিক মহাসাগর ও ভূ-মধ্যসাগরের মধ্যে অবস্থিত – জিব্রাল্টার প্রণালী ।
১৬) আকাশের উজ্জলতম নক্ষত্রের নাম – লুব্ধক ।
১৭) জোয়ার ভাটার তেজকটাল হয় – অমাবস্যায় ।
১৮) জোয়ার ভাটার মরাকাটাল হয় – পূর্ণিমায় ।
১৯) সূর্য থেকে পৃথিবীতে আলো আসতে সময় লাগে – ৮ মিনিট ২০ সেকেন্ড ।
২০) বায়ুমন্ডের চাপের ফলে ভূগর্ভস্থ পানি সর্বোচ্চ কত গভীরতা হতে লিফটের সাহায্যে তোলা যায়- ৩৪ ফুট বা ১০ মিটার ।
২১) ৮০% আদ্রতা বলতে বোঝায়- বাতাসে জলীয় বাস্পের পরিমাণ সম্পৃক্ত অবস্থায় ৮০% ।
২২) পরপর দুটি জোয়ারের মধ্যে ব্যবধান – ১২ ঘন্টা ।
২৩) পর্বত চুড়ায় বায়ুর চাপ – কম ।
২৪) যে বায়ু সর্বদা উচ্চচাপ অঞ্চল থেকে নিম্নচাপ অঞ্চলের দিকে প্রবাহিত হয় – নিয়ত বায়ু ।
২৫/পৃথিবীর ঘূর্ণনের ফলেও আমরা ছিটকিয়ে পরি না – মধ্যাকর্ষণ বলের জন্য ।
২৬) সূর্য-পৃষ্ঠের উত্তাপ প্রায় – ৬০০০০ সেন্টিগ্রেড ।
২৭) দ্রূততম গ্রহ – বুধ ।
২৮) রাত ও দিনের উদ্ভব হয় – আহ্নিক গতির কারণে ।
২৯) দিন ও রাত সর্বত্র সমান হয় – নিরক্ষরেখায় ।
৩০) বস্তুর ওজন বেশী – পৃথিবীর কেন্দ্রে ।
৩১) আকাশ নীল দেখায় – নীল আলোর বিক্ষেপণ বেশী বলে ।
৩২) পৃথিবীর নিকটতম গ্রহ – মঙ্গল ।
৩৩) সূর্য্যের নিকটতম গ্রহ – বুধ ।
৩৪) পৃথিবী একটি অভিগত গোলক এর পরিধি – ২৫০০০ মাইল ।
৩৫) বায়ু মন্ডলে সর্বাধিক পাওয়া যায় – নাইট্রোজেন ।
৩৬) বেতার তরঙ্গ প্রতিফলিত হয় – আয়নমন্ডলে ।
৩৭) সূর্য্য গ্রহণে চন্দ্র থাকে – পৃথিবী ও সূর্য্যের মাঝখানে ।
৩৮) চন্দ্র গ্রহণে পৃথিবী থাকে – সূর্য্য ও চন্দ্রের মাঝখানে ।
৩৯) দ্রাঘিমার পার্থক্য ১০ ডিগ্রী হলে সময়ের পার্থক্য হয় – ৪ মিনিট ।
৪০) পৃথিবী গোলাকার এই ধারণা দেন – পিথাগোরাস ।
৪১) সমুদ্র স্রোতের কারণ – বায়ু প্রবাহ, উষ্ণতা, গভীরতা ও পৃথিবীর আয়তন ।
৪২) চন্দ্র, সূর্য্য ও পৃথিবী একই সরলরেখায় থাকলে – প্রবল জোয়ার হয় ।
৪৩) সূর্য্যের চারপাশে ঘুরে আসতে পৃথিবীব সময় লাগে – ৩৬৫ দিন ৫ ঘন্টা ৪৭ মিনিট ।
৪৪) পৃথিবীর উষ্ণতম স্থান – আজিজিয়া (লিবিয়া) ।
৪৫) পৃথিবীর শীতলতম স্থান – ভোস্টক (রাশিয়া) ।
৪৬) সমুদ্রে জাহাজের অবস্থান নির্ণয় করা হয় – ক্রোনোমিটারের সাহায্যে ।
৪৭) ভূ-ত্বকের গভীরতা প্রায় – ১৬ কি.মি. ।
৪৮) মেরু রেখার উত্তর প্রন্তকে সুমেরু ও দক্ষিণ মেরুকে কুমেরু বলে ।
৪৯) পৃথিবীর সর্বোত্র দিন রাত সমান – ২১ মার্চ ও ২৩ সেপ্টেম্বর ।
৫০) প্রাথমিক শীলা – আগ্নেয়শীলা ।
৫১) মার্বেল গ্রাফাইট – রুপান্তরিত শীলা ।
৫২) বায়ুমন্ডলের গভীরতা – ১৬১০ কি.মি. ।
৫৩) মেরু অঞ্চলের পানি – শীতল ও ভারী ।
৫৪) নিরক্ষীয় অঞ্চলের পানি – উষ্ণ ও হালকা ।
৫৫) বায়ু মন্ডলের যে স্তরে মেঘ, বৃষ্টি, কুয়াশা সীমাবদ্ধ থাকে – ট্রপোমন্ডল ।
৫৬) ভাসমান মেঘ থেকে কৃত্রিম বৃষ্টিপাত ঘটানো যায় – শুস্ক বরফের গুরা ছিটিয়ে ।
৫৭) পৃথিবীর সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত অঞ্চল – চেরাপুঞ্জি (ভারত) ।
৫৮) পৃথিবী থেকে চন্দ্রের দূরত্ব – ৩ লক্ষ ৮৪ হাজার কি.মি. ।
৫৯) সূর্য্য গঠনকারী গ্যাসীয় উপাদান – হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম ।
৬০) পৃথিবী থেকে খালি চোখে দেখা যায় – উজ্জলতম গ্রহ শুক্র ।
৬১) মঙ্গলের পৃষ্ঠদেশ কঠিন । কার্বনের আধিক্যের কারণে মাটির রং লাল ।
৬২) মঙ্গলের দুটি গ্রহ – ফোবাস ও ডিমোস । এরা কাছ থেকে মঙ্গলকে প্রদক্ষিণ করে ।
৬৩) সূর্য্য থেকে মঙ্গল গ্রহের দুরত্ব – ২২.৮ কোটি কি.মি. (গড়) ।
৬৪) পৃথিবী থেকে মঙ্গল গ্রহের দুরত্ব – ৭.৭ কোটি কি.মি. ।
৬৫) প্রথম পরিবেশ আন্দোলনের সূচনা করেন – ডেবিট থরো ।
৬৬) ‘গ্রীন পিচ’ পরিবেশ আন্দোলন গ্রুপ । এটির যাত্রা শুরু ১৯৮৫ সালে ।
৬৭) ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস ।
৬৮) পৃথিবীর কোন নির্দিষ্ট অঞ্চলে বসবাসকারী জীবের সংখ্যাকে বলে – বায়োম্স ।
৬৯) জীববৈচিত্র সংরক্ষণ কনভেনশন (১৯৯২) স্বাক্ষর করে – ১৪০ টি দেশ ।
৭০) পলিথিন পোড়ালে উৎপন্ন হয় – হাইড্রোজেন সায়ানাইড ও ডাই-অক্সিজেন ।


BCS PRELIMINARY & WRITTEN

Learn from scratch to become a first class officer.


BANK JOBS

A huge collection of Bank Job Questions to guide you through.


NTRCA

Easy and simple way to succeed.


GOVT. JOBS

StudyPress has solutions of ALL previous govt job tests.


MBA ADMISSION TEST

Worried about Math and English? Try Studypress


CURRENT NEWS

Every Important News updates for Job Preparation.


MISTAKE LIST

Something you will find nowhere else, but you need the most.


ALL PREVIOUS QUESTION & SOLUTIONS

The test was held yesterday? Solution is here!!


Login Now